রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ০২:৩১ অপরাহ্ন

৭০ টাকার বাস ভাড়া ৩০০ টাকা!

৭০ টাকার বাস ভাড়া ৩০০ টাকা!


শেয়ার বোতাম এখানে

প্রতিদিন ডেস্ক :
ঈদের আনন্দ পরিবারের সঙ্গে ভাগাভাগি করতে ঢাকা ছাড়ছেন নগরবাসী। সরাসরি বাসের টিকিট না থাকায় শেষ বেলায় অনেকেই যাচ্ছেন ভেঙে ভেঙে। আবার ঘাটে জ্যামের কথা চিন্তা করেও পাটুরিয়া কিংবা আরিচা ঘাট পর্যন্ত লোকাল বাসে যাচ্ছেন অনেকে। সাধারণ সময়ে এই রুটের ভাড়া ৭০ টাকা হলেও এখন যাত্রী বেড়ে যাওয়ায় ৩০০ টাকা করে নেওয়া হচ্ছে। শুক্রবার (৯ আগস্ট) সকাল থেকে গাবতলী বাস টার্মিনাল ঘুরে এবং যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে।

গাবতলী বাস টার্মিনালের পাশেই আরিচাগামী বাসের টার্মিনাল। এখান থেকেই ছেড়ে যাচ্ছে আরিচাঘাটের বাস। প্রকাশ্যেই বাসের হেলপাররা যাত্রীদের ডাক দিচ্ছেন−‘আরিচা ৩০০’, ‘খালি ৩০০’। যাত্রীরাও অনেকটা নিরুপায় হয়ে এসব বাসেই উঠে বসছেন। অন্যদিকে পাটুরিয়াগামী বাসেও একই অবস্থা। রাস্তার ওপর গাড়ি দাঁড় করেই হাঁকছেন−‘পাটুরিয়া ৩০০’, ‘পাটুরিয়া ৩০০’। এই রুটে যাত্রী বেশি থাকায় রাজধানীর বিভিন্ন মিনিবাসসহ অন্য রুটের মিনিবাসও চলতে দেখা গেছে।

পাটুরিয়া ঘাটগামী আবদুস সালাম জানান, ঈদের সময় হলেই এই রুটে ভাড়া চার গুণ বেড়ে যায়। আরিচাঘাটে ৩০০ টাকা থেকে ৪০০ টাকা আর পাটুরিয়া ঘাট পর্যন্ত ৩০০ টাকা ভাড়া নেয়। এর কমে এক টাকাও নেবে না। পদ্মালাইন আছে ওইদিকে, তারা ভাড়া চাচ্ছে ৪০০ টাকা।

কেরানীগঞ্জের একটি স্কুলের কর্মচারী জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘আমি যাবো সাটুরিয়া। ওই রুটের গাড়িই নেই। সব গাড়ি পাটুরিয়ার দিকে। ভাড়াও ৪-৫ গুণ বেশি।’

আরিচাগামী যাত্রী মারুফ জানান, প্রতি বছরই ঈদের সময় ভাড়া এরকম থাকে। আমরা অনেকটা নিরুপায় হয়েই যাই। অন্যান্য সময় ভাড়া থাকে ৭০ টাকা।

এই রুটে অতিরিক্ত ভাড়ার কারণ জানতে চাইলে আরিচা রুটের একটি গাড়ির হেল্পার সালাম বলেন, ‘আজকে একদিনই তো। ঈদে আপনারা না দিলে কে দেবে?’

আরিচা রুটের গাড়ির লাইনম্যানের কাছে জানতে চাইলে তিনি মালিকের সঙ্গে কথা বলতে বলেন। মালিকের নম্বর চাইলে তা দিতে তিনি অপারগতা প্রকাশ করেন।

এই দুই রুটে অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার কারণ জানতে চাইলে বাসচালক এবং কনডাক্টর কেউই কথা বলতে রাজি হননি।

গাবতলী টার্মিনালে স্থাপিত ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অভিযোগ কেন্দ্রে দায়িত্বরত দারুসসালাম থানার এএসআই এরশাদুর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘যাত্রীদের নিরাপত্তার জন্য সার্বক্ষণিক সিভিলে এবং পোশাকে পুলিশ ডিউটি করছে। সকালের দিকে লোকাল গাড়িগুলো কিছু ঝামেলা করছিল যাত্রীদের সঙ্গে। অনেকেই ৯৯৯-এ ফোন দিয়ে অভিযোগ জানিয়েছিল, পরে আমরা গিয়ে ব্যবস্থা নেই।’

তবে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় বন্ধে বিআরটিএ’র ভিজিলেন্স টিম কাজ করছে গাবতলী বাস টার্মিনালে। বিআরটিএ’র মোটরযান পরিদর্শক ওয়াহিদুর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমরা যাত্রীদের কাছ থেকে অভিযোগ পাওয়া মাত্রই ব্যবস্থা নিচ্ছি। আমাদের এখানে মোবাইল কোর্ট আছে, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আজকেও অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার জন্য ভোক্তা অধিকার আইনে দুই হাজার টাকা জরিমানা এবং ভবিষ্যতে আর অতিরিক্ত ভাড়া নেবে না মর্মে মুচলেকা নেয়। এছাড়া অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার কারণে দুই জনকে গ্রেফতারও করেছে পুলিশ।



শেয়ার বোতাম এখানে

সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin