রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১২:৩৭ অপরাহ্ন


বিয়ানীবাজারে ৫ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ উদ্বার

বিয়ানীবাজারে ৫ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ উদ্বার


শেয়ার বোতাম এখানে

বিয়ানীবাজার প্রতিনিধি:

বিয়ানীবাজার উপজেলায় ৫ম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে এই শিক্ষার্থীর নানা বাড়ি থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। উদ্ধারকৃত শিক্ষার্থী উপজেলার মুড়িয়া ইউনিয়নের পাথারী পাড়া গ্রামের নজরুল ইসলামের মেয়ে জান্নাত (১২)। সে সারপার হাফিজিয়া দাখিল মাদ্রাসার ৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে,আত্মহরণকারী জান্নাতের মায়ের বিবাহ হয়েছিল মুড়িয়া ইউনিয়নের পাথারীপাড়া গ্রামে। জান্নাতের জন্মের বছর খানেক পর তার বাবা-মায়ের বিবাহ বিচ্ছেদ হলে সে তার মায়ের সাথে নানা বাড়িতে চলে আসে। পরে আরেকজনের সাথে তার মায়ের বিবাহ হয়। এই সংসারে তার আরেকটি সন্তান রয়েছে। মঙ্গলবার তিনি সন্তানকে নিয়ে ডাক্তার দেখাতে যান। তখন বাড়ির একটি কক্ষে একা ছিল জান্নাত। সে তার ঘরের দরজা ভেতর থেকে বন্ধ রাখে। একপর্যায়ে মা বাড়িতে ফিরে আসলে মাসহ পরিবারের সদস্যরা তাকে ডাকতে গেলে কোনো সাড়া পাননি। পরে ঘরের পিছনের দরজা খুলে ঘরে ঢুকে দেখতে পান গলায় ফাঁস দিয়েছে জান্নাত।

স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ পেয়ে রাত ১১টার দিকে বিয়ানীবাজার থানার উপপরিদর্শক শাহ আলম ভূঁইয়ার নেতৃত্বে একদল পুলিশ এসে তার লাশ উদ্ধার করে। পরে তার লাশ ময়নাদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।মুড়িয়া ইউপি সদস্য আব্দুল মতিন বলেন, ৫ম শ্রেণির এই শিক্ষার্থী আত্মাহত্যা করেছে। তবে কী কারণে আত্মহত্যা করেছে সে বিষয়ে জানতে পারিনি।

বিয়ানীবাজার থানার ওসি হিল্লোল রায় বলেন, জান্নাত নামের মেয়েটির লাশ উদ্ধার করেছে একদল পুলিশ। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা যাচ্ছে, সে আত্মাহত্যা করেছে। এই আত্মাহরণের কারণ এখনো জানতে পারিনি। তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ওসমানী হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin